বুধবার   ১২ মে ২০২১   বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

আরও ৮ হেফাজত নেতা কারাগারে

কোর্ট রির্পোটার

প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০২১  

 
সোনারগাঁয়ে  নাশকতা, পুলিশ সদস্যদের আহত করা ও এক সাংবাদিককে আহত করার ঘটনায় তিনটি পৃথক মামলায় নতুন করে আরও ৮জন হেফাজতের নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাদের কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। গতকাল শনিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আহমেদ হুমায়ুন কবির এর আদালতে ৮ আসামিকে তুললে বিজ্ঞ আদালত তাদের কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন কোর্ট পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ফেরদৌসী। গতকাল এদেরকে পৃথক পৃথক স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়। আসামীরা হলো, বেলায়েত (৩০), জসিম উদ্দিন (২১), মাওলানা মো. আসিকুর (২১), মো. নূরে আলম (২১), মো. ফরিদ, ইয়াসিন (৪৪), রাকিব (২৮) ও সাব্বির হোসেন। এর আগে আরো চারজনকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এরা হলো মো. মোস্তফা (৪০), রাজু (২৭), মো. ইকরাম হাসান (২০) ও আবু রায় প্রধান। এই নিয়ে এই মমলায় মোট ১২ জন হেফাজতের নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। প্রসঙ্গত, গত ৪ এপ্রিল বিকেলে হেফাজতের মহাসচিব মামুনুল হককে সোনারগাঁ রয়েল রিসোর্টে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় মামুনুল হকের দাঁড়ি টানার অভিযোগ তুলে চ্যানেল এস টিভির সোনারগাঁ প্রতিনিধি হাবিবুর রহমানের উপর হামলার চালায় হেফাজত ইসলাম, জামায়াত ও বিএনপির নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় হেফাজতের মহাসচিব মামুনুল হককে প্রধান আসামি করে সাংবাদিক হাবিব বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ৭০ থেকে  ৮০ জনকে আসামি করে একটি  মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ৫/৪/২১। এ ঘটনায় ৬ এপ্রিল মঙ্গলবার রাতে মোস্তফা নামের  জামাত কর্মীকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাব ইন্সপেক্টর মো. নুরুল ইসলাম। মামুনুল হকের ঘটনায় সেদিন হেফাজত ইসলামের কর্মীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে, অর্ধশতাধিক যানবাহনসহ আওয়ামী লীগ অফিস ভাঙচুর করে। পুলিশ বাধা দিলে পুলিশকে লক্ষ করে ইটপাটকেল ছুঁড়লে আহত হয় এএসআই শেখ ফরিদ, মো. জসিম উদ্দিন, মো. ইউনুস আলী ্ও নারী পুলিশ মার্জিয়া আক্তার। এ ঘটনায়  এসআই  মো. ইয়াউর রহমান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। যার নং ৭/৪/২১। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর খন্দকার তবিদুর রহমান। হরতালে হেফাজত নেতাকর্মীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে, গাড়ি ভাঙচুর করে সড়ক অবরোধ করার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ২০০ থেকে ৩০০ জনকে আসামি করে আরো একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং ৬/৪/২১। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর মো. সাইদুজ্জামান।

এই বিভাগের আরো খবর