মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১   কার্তিক ৩ ১৪২৮

আশাবাদি সালাউদ্দিন মেম্বার, শেষ পর্যন্ত থাকবেন ওসমান

যুগের চিন্তা অনলাইন

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০২১  

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সরব হচ্ছেন প্রার্থীরা। চেয়ারম্যান পদে অনেকে নিশ্চিত হলেও সদস্য পদকে ঘীরে নির্বাচনী আমেজ পরিলক্ষিত হচ্ছে ওয়ার্ডগুলোতে। এনায়েতনগর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডও তার ব্যতিক্রম নয়। জানা গেছে, প্রায় সাড়ে ১১ হাজার ভোটারের এই ওয়ার্ডটির প্রধান দুই এলাকা পঞ্চবটি, ফাজেলপুর, আজমতপুর ও হরিহরপাড়ার আমতলা এলাকা।

 

গুরুত্বপূর্ন এই ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদে নির্বাচনি সালাম জানিয়েছেন এখনো পর্যন্ত দু’জন। তন্মধ্যে একজন বর্তমান মেম্বার মো. সালাউদ্দিন এবং অপরজন ফাজেলপুর এলাকার বাসিন্দা মো. ওসমান। তারা দু’জনই আলোচনায় আছেন। নির্বাচনকে ঘিরে মাঠ গোছানোর কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে, সালাউদ্দিন বর্তমান মেম্বার হওয়ায় তার নির্বাচনি মাঠ অনেকটা গোছানোই আছে। আগামী নির্বাচনে জয় নিয়েও তিনি আশাবাদী।

 

জানা গেছে, ২০১৬ সালের নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলো মো. সালু ও মো. মাসুম। তন্মধ্যে সালু সাবেক ইউপি সদস্য ছিলেন। ২০১৬ সালের নির্বাচনে সাবেক ইউপি সদস্য সালু ও মাসুমকে পরাজিত করে জয় লাভ করেন বর্তমান ইউপি সদস্য সালাউদ্দিন। বিগত পাঁচ বছরে তিনি কাজ করে গেলেও এখনো কিছু কাজ অসম্পন্ন রয়েছে। এই বিষয়ে জানতে চাইলে সালাউদ্দিন মেম্বার বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হওয়ার পর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে আরসিসি সড়ক ও বেশ কিছু ড্রেনের কাজ সম্পন্ন করেছি। কিন্তু ফাজেলপুরে এখনো ৩টি ড্রেনের কাজ বাকি আছে।

 

বিগত সময়ের মধ্যেই এগুলো সম্পন্ন করা যেত। কিন্তু মাঝে করোনা মহামারির কারণে কাজ সম্পন্ন করা যায়নি। অনেক কাজই আটকে ছিলো। আশা করছি, আগামীতে যদি জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে, তাহলে আমি বাকি কাজগুলো সম্পন্ন করবো। এই জন্যই আগামী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। জয়ের ব্যপারে আমি শতভাগ আশাবাদি। কারণ জনগণ আমার সাথে আছে। বিগত সময়ে করোনাসহ নানা সংকটে মানুষের জন্য কাজ করেছি।’ জানা গেছে, অন্যান্য ওয়ার্ডগুলোর মতই এনায়েতনগরের ১নং ওয়ার্ডেও জলাবদ্ধতার সমস্যা রয়েছে। এই সমস্যা উত্তোরণের জন্য থেমে থেমে কাজ করা হলেও স্থায়ী সমাধান হচ্ছে না।

 

এই বিষয়ে জানতে চাইলে সালাউদ্দিন বলেন, ‘জলাবদ্ধতার সমস্যা ব্যপক। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যেই বরাদ্ধ আসে, তা দিয়ে স্থায়ী সমাধান সম্ভব নয়। এজন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড বা এলজিইডিকে উদ্যোগি হতে হবে।’ এদিকে, ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মো. সালাউদ্দিন ওরফে সালু গত কয়েক মাস আগে মৃত্যু বরণ করেন। অন্যদিকে, ২০১৬ সালে নির্বাচনে অংশ নেয়া মো. মাসুমকে এবার প্রচার প্রচারণা চালাতে দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু এই ওয়ার্ডে আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে যাচ্ছেন ১নং ওয়ার্ডের ফাজেলপুর এলাকার বাসিন্দা মো. ওসমান। তিনি তার ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে নির্বাচনি সালাম ও প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

 

এই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ওসমান বলেন, ‘নাগরিক হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেয়ার অধিকার আছে। আমি নিঃস্বার্থে মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করতে চাই। তাই এলাকাবাসীর ভালোবাসা নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে যাচ্ছি। নির্বাচনি ফরম সংগ্রহ করবো এবং জনগণকে সাথে নিয়ে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবো। জয়-পরাজয় আল্লাহ তায়ালার হাতে।’ এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বর্তমান মেম্বার সালাউদ্দিন সাহেবও মানুষের জন্য ভালো কাজ করেছেন। কিন্তু আমার মনে হয়, আমি নির্বাচিত হলে আরো কিছু সমস্যার সমাধানে কাজ করতে পারবো। যেমন জলাবদ্ধতার সমস্যা এখানে ব্যাপক। তাছাড়া মাদকের ব্যাপকতাও রয়েছে। এসব সমস্যা দুর করাসহ তরুণদের কর্মসংস্থানে উদ্যোগি হবো। চেষ্টা করলে সবই সম্ভব। তবে, জনপ্রতিনিধি হলে কাজ করাটা সহজ।

 

প্রসঙ্গত, আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের আওতায় ফতুল্লার এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
 

এই বিভাগের আরো খবর