বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১   আষাঢ় ১০ ১৪২৮

উল্টো পথে গাড়ি, সড়কের বিশৃঙ্খলা

মেহেদী হাসান

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

শহরে কিছুতেই সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো যাচ্ছে না। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে সড়ক পরিবহন আইন পরিবর্তন করেছে সরকার। মামলার সঙ্গে বিপুল পরিমাণ জরিমানার বিধান রেখে করা হয়েছে নতুন আইন। এখনও শহরের রাস্তায় প্রতিদিনই উল্টো পথে গাড়ি চলতে দেখা যায়। অনেকেই দ্রæত যাওয়ার জন্য উল্টো পথে গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এই কারণে শহরের প্রতিটি মোড়ে মোড়ে যানজট সৃষ্টি হয়।

 

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় , নগরীর ২ নং রেল গেট  মোড় থেকে দেওভোগ আলী আহাম্মদ চুনকা সড়কে যাওয়ার সময়  ডায়মন্ড চত্বরে সামনে  উল্টো পথে গাড়ি চালিয়ে পার হওয়া কারণে প্রায় সময় রাস্তাটি যানজটের সৃষ্টি হয়। এছাড়াও শহরের গলাচিপা মোড়, চাষাড়া নূর মসজিদের মোড়, আমলা পাড়া মোড় ও উকিলপাড়ার মোড়গুলো থেকে গাড়িগুলো বঙ্গবন্ধু সড়কে উল্টো পথে আসা- যাওয়ার কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়।

 

মোড়গুলোতে প্রায় সময় দেখা যায়, মোটরসাইকেল, রিকশা, সিএনজি, অটোরিকশাসহ অন্যান্য যানবাহনগুলো উল্টো পথে চলাচল করে। আর এই যানবাহনগুলো উল্টো পথে যাওয়ার কারণেই বঙ্গবন্ধু সড়কে যানজটের সৃষ্টি। এছাড়াও বিভিন্ন পরিবহনগুলোকে দেখা যায় সড়কের মাঝে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠা-নামা করে। এতেও সড়কের যানজটের সৃষ্টি হয়।শহরের চাষাঢ়া ও ২ নং রেল গেট এলাকায় রাস্তায় উল্টো পাশ দিয়ে ট্রাফিক পুলিশের সামনেই যত্রতত্র রিকশা, মোটরসাইকেল, রিকশা-ভ্যান চলছে। এতে ট্রাফিক পুলিশ ও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

 


এ বিষয়ে ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্য জানান, ধৈর্যহীনরাই উল্টো পথে বেশি  চলে। উল্টো পথে গাড়ি চালানোয় শুধু আইন অমান্য করাই হয় না এ কারণে ঘটে দুর্ঘটনাও। উল্টো মানসিকতা যাদের, তারাই সোজা রাস্তায় না গিয়ে উল্টো রাস্তায় চলে। নিয়ম অনুযায়ী সবার সোজা পথে যাওয়ার কথা। কিন্তু আইনের প্রতি শ্রদ্ধা না থাকায় তারা উল্টো পথে গিয়ে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে। আমাদের ট্রাফিক সদস্য বাড়ানো হলে আমরা সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে পারব।
ট্রাফিক পুলিশের সদস্য আরও জানান, ২ নং রেলগেট এলাকায় বাস থামিয়ে যাত্রী নেয়, আমরা অনেক বার নিষেধ করার পরও তারা এখানে বাস থামিয়ে যাত্রী উঠায় তারা এখানকার ক্ষমতাশালী দলের লোক বলে আমরা তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারছিনা।


 

এই বিভাগের আরো খবর