মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১১ ১৪৩১

কুতুবপুরে নামধারী যুবলীগ নেতা মাদকসহ গ্রেপ্তার

ফতুল্লা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২৩  


ফতুল্লার কুতুবপুরে নানা অপকর্মের মূল হোতা ও মাদক ব্যবসায়ী নামধারী যুবলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন তুহিন ওরফে নাক্কু সাদ্দাম ও তার সহযোগী নাঈমকে মাদকসহ গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) সকাল সাড়ে ১১ ঘটিকার সময় পাগলা পশ্চিম নন্দলালপুর নাক্কাটার বাড়ী মোড় এলাকার মনির মিয়ার রিকশার গ্যারেজ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

 

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত নাক্কু সাদ্দাম কুতুবপুর ইউনিয়ন ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক পরিচয় দিয়ে পাগলা নয়ামাটি ও নন্দলালপুর এলাকায় মাদক বিক্রি ও সেবন করে আসছিল। তার মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণে রয়েছেন বিশাল এক কিশোর গ্যাং বাহিনী। কয়েক বছর পূর্বে মাদক বিক্রি ও সেবন করার অপরাধে ২০দিন জেলও খাটছে।

 

 

রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় নাক্কু সাদ্দাম গড়ে তুলেছেন একটি বিশাল মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। সেই সিন্ডিকেটে রয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক কিশোর গ্যাং সদস্য। আর তাদের মাধ্যমে মানুষকে মারধর ও ফিটিং দেওয়ায় ছিল তার মূল কাজ। নাম প্রকাশ্যে অনইচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, নয়ামাটি এলাকার সালাউদ্দিনের ছেলে নাক্কু সাদ্দাম ও তার সহযোগীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ।

 

 

নাক্কু সাদ্দামের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মাদক, চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, চাঁদাবাজি, ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অপকর্ম। তাদের অপরাধের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতেও ভয় পায়। তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক অপরাধের অভিযোগ। অদৃশ্য ইশারায় থানা পুলিশও এই অপকর্মের মূল হোতা নাক্কু সাদ্দামের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনিহার প্রকাশ করতে দেখা যায়।

 

 

তার পরিবারের প্রতিটি সদস্য কোনো না কোনো অপরাধের সাথে সরাসরি জড়িত রয়েছে বলেও তিনি জানান। এ বিষয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ তথ্যসূত্রে জানা যায়, উপ-পরিদর্শক হাবিবুর রহমান সজীব ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ পশ্চিম নন্দলালপুর এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা কালে দক্ষিণ নয়ামাটি এলাকার সালাউদ্দিনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন তুহিন ও তার সহযোগী নাঈমকে মাদকসহ আটক করে। পরবর্তীতে বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট তাদেরকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে নারায়ণগঞ্জ জেলখানায় প্রেরণ করে।   এন.হুসেইন রনী/জেসি

এই বিভাগের আরো খবর