মঙ্গলবার   ০৪ অক্টোবর ২০২২   আশ্বিন ১৯ ১৪২৯

জিমখানায় বেপরোয়া কিশোর গ্যাং মেংগো গ্রুপ  

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

 

শহরের জিমখানা এলাকায় কিশোরগ্যাং মেংগো গ্রুপের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে লড়াই করছে পাইকপাড়া এলাকার শাহ জাহানের ছেলে হাবু। এই ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায়  তাকে হত্যা চেষ্টা করার উদ্দেশ্যে হামলা হয়েছে উল্লেখ্য করে অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগি পরিবার।

 

 

 

হামলা কারীদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট থাকা সত্বেও তাদের বিরুদ্বে কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় তারা আইনকে তোয়াক্কা না করে অটো চালক হাবুর উপর হামলা চালায়। বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় হাবুর মামা আলো বাদি হয়ে অভিযোগ করেন।

 

 

 
এই ঘটনায় এখনো কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় নিরাপত্তা হিনতায় আছে ভুক্তভোগি পরিবার। অভিযোগে উল্লেখ্য করে  আলী আজমের স্ত্রী আলো বলেন, বিবাদী কিশোর গ্যাং মেংগো গ্রুপ্রে প্রধান পাইকপাড়া এলাকার মহীদের ছেলে মেঙ্গো(৩৫), একই এলাকার তার সহযোগি রিপন খন্দকারের ছেলে রকি(৩০), অঞ্জণ (৩০)  তাদের সন্ত্রাসী  বাহিনী নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেড় ধরিয়া আমার ভাগিনা হাবুর উপর হামলায় চালায়।

 

 

 

হাবু তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়ায় তা তুলে নিতে আগে থেকে তাকে বিভিন্ন হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে এই সন্ত্রাসী বাহিনী। প্রায় চার মাস পূর্বে বিবাদীগণ হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ভাগিনাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ।

 

 

 

তখনও মেংগো গ্রুপের সদস্যদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়। যা পরে তা মামলা হয়ে তাদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট বের হয়। সেই মামলা তুলে নিতে আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দেয়া হয়।

 

 

 

তারই ধারাবাহিকতায় অদ্য বুধবার সকালে জিমখানা মন্ডলপাড়া পুল এলাকায় মা হোটেলের ভিতরে মেংগো আমার ভাগিনা হাবুকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে যাওয়ার সাথে সাথে বিবাদীগণ হাতে ধারালো অস্ত্র নিয়ে আচমকা আমার ভাগিনার উপর হামলা করে।

 

 

 

বিবাদীগণ আমার ভাগিনাকে এলোপাথারী কিল, ঘুষি লাথি মেরে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্নক নিলা ফুলা জখম করে। মারধরের একপর্যায়ে বিবাদীগণ আমার ভাগিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তাদের হাতে থাকা ধারালো সুইস গিয়ার ছুড়ি দিয়ে হাবুর গলায় আঘাত করে।

 

 

 

তখন হাবুর গলার ডান পাশে মারাত্নক রক্তাক্ত জখম হয়। পরবর্তীতে আমার ভাগিনার আত্নচিৎকারে আমার ভাগিনার বন্ধু শুভ(২৪) পিতাঃ সেলিম এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীদের হামলায় হাতে থাকা ধারালো ছুড়ি দিয়ে শুভর মাথায় আঘাত হয়।

 

 

 

তিনি আরও জানান, পরবর্তীতে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলা কারীরা বাইক নিয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে তাদের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে তারা প্রাণে রক্ষা পায়।

 

 

 

এই ঘটনায় হাবু নগরীর জেনারেল হাসপাতাল ভিক্টোরিয়ায় চিকিৎসা গ্রহন করে বর্তমানে চিকিৎসাাধীন আছে। হামলা কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তারা দাবী জানান। এই সন্ত্রাসী কিশোর  গ্যাং গ্রুপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়া হলে তাহলে যে কোন সময় মৃত্যুর ঘটনা ঘটতে পারে।

 

 

 

যে কোন সময় আমাদের হত্যাসহ আরো বড় ধরনের ক্ষতি সাধন করিতে পারে। তাই বিবাদীগণের এহেন কর্মকান্ডে নিরুপায় হইয়া জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে প্রশাসনের কাছে সহযোগিতা চাই। সেই সাথে অপরাধীরা যেন কোন ভাবে ছাড় না পায় তার জন্য দাবী জানাই।

 

 

 

তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানাই। এলাকাবাসী জানান, মেংগো গ্রুপের নেতৃত্বে নগরীর ২ নম্বর রেলগেট, ডিআইটি, মন্ডলপাড়া ব্রীজ, ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল এলাকায় ছিন্তাই, চুরি, ডাকাতি সহ মাদক  কারবারি চলে।

 

 

 

তাদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করতে গেলে তারা তাদের উপর হামলা করে। সেই সাথে বিভিন্ন অস্ত্র দেখিয়ে ভয় দেখান। এবিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আনিচুর রহমান জানান, আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।  

এই বিভাগের আরো খবর