শুক্রবার   ২১ জানুয়ারি ২০২২   মাঘ ৮ ১৪২৮

না.গঞ্জের সাংসদকে নানক জীবিত থাকতে নৌকা দিতে দিবোনা

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২২  

নারায়ণগঞ্জের এক সংসদ সদস্যকে ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেলিনা হায়াৎ আইভিকে নৌকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর আভিকে নিয়ে ‘কেউ কোনো ধরনের ষড়যন্ত্র করে রেহাই পাবেন না। জাতীয় পার্টির বন্ধুদের নারায়ণগঞ্জে এক ভিন্ন চরিত্র চেহারা দেখলাম।


শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে বন্দরের কবিলের মোড় এলাকায় নির্বাচনী কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।
আওয়ামীলীগ সভাপতি মন্ডলির সদস্য নানক নারায়ণগঞ্জের এক সাংসদকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, ‘মনে রাখবেন শেখ হাসিনা নৌকা মার্কা দিছে দেইখা আপনি এমপি হয়েছেন। কি বুঝাতে চাই আকার ইঙ্গিতে বুঝাতে পারছি বলে মনে করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রার্থী দিয়েছেন আর শেখ হাসিনার সেই প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিরোধীতা করছেন। আগামীতে নৌকা পাবেন না। আমরা জীবিত থাকতে আগামী নির্বাচনে তাকে আর নৌকা পেতে দিবো না।


শুক্রবার বিকেলে বন্দরের নবীগঞ্জ কবিলের মোড় এলাকায় আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।


তিনি বলেন, ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী এই নারায়ণগঞ্জে উড়ে এসে জুড়ে বসে নাই। তার বাবা আমাদের পরম শ্রদ্ধাভাজন নেতা চুনকা ভাই, এই নারায়ণগঞ্জে ৭৫ এর পর আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করেছেন। জনগণের হৃদয়ে সঙ্গে সম্পর্ক করে তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারের দাবিতে দিনরাত পরিশ্রম করেছেন। সেই চুনকা ভাইয়ের মেয়ে ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীকে আপনারা গত দুই দুইবার মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করেছিলেন। আপনারা আপনাদের পবিত্র আমানত খেয়ানত করেননি। আপনারা তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। আপনাদের বিশ্বাসের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী করে নাই। আইভি আপনাদের বিশ্বাস রেখেছে।


 
তিনি আরও বলেন, আইভি মেয়র হয়ে বন্দরের সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করেছেন। তাকে প্রধানমন্ত্রী নৌকা দিয়ে আবারও আপনাদের কাছে পাঠিয়েছে। গত দুই বারের মত এবারও আপনারা আইভিকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। আজকের জনসভা প্রমান করেছে বন্দরের মানুষ কোন মিথ্যাচারের কাছে হার মানবে না। কোন হুমকি ধামকি তাকে হারাতে পারবে না। আইভির বিজয় হবেই ইনশা আল্লাহ। ২০১৬ সনের নির্বাচনে আইভিকে আপনার ৮৩ হাজার ভোটে নির্বাচিত করেছেন। এবার লক্ষাধিক ভোটের ব্যবাধানে নির্বাচিত করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি। কেননা আইভি যেভাবে নগরীকে যেভাবে সৌন্দর্য বর্ধিত করেছে তা আরে কেউ করতে পারে নাই। সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ভোটার মেয়র আইভিকে পছন্দ করে। তাই আমরা বিশ্বাস করি এবারও আইভি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে।    


বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রশীদের সভাপতিত্বে ওই সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলির সদস্য জাহাঙ্গীর কবীর নানক, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, সভাপতি মণ্ডলির সদস্য আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এসএম কামাল, সুজিত রায় নন্দী, শাহাবউদ্দিন ফরাজি,ঢাকা শ্যাপুর, গেন্ডারিয়ার আসনের সাবেক এমপি সানজিদা খানম। এছাড়াও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এমপি মির্জা আজম, নারায়ণগঞ্জ ২ আাসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু।  মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য অ্যাড. আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি অ্যাড. খোকন সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি কাজিম উদ্দিন প্রধান।        
 

এই বিভাগের আরো খবর