মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২১ ১৪২৯

নারায়ণগঞ্জে বন্যার পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে

পরিচয় প্রকাশ গুপ্ত

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২  

 দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ডুবছে। সেখানে বন্যার পানিতে মানুষ হাবুডুবু খাচ্ছে। এ জেলার নিম্নাঞ্চলও ডুবে গেছে। নাসিক সূত্রে জানা গেছে, শীতলক্ষ্যা নদীর পানি ইতিমধ্যে শহরের নিষ্কাশন নর্দমার মুখ বরাবর উঠে এসেছে। বিগত ’৮৮ ও ’৯৮ সালেও আন্ডারগ্রাউন্ড ড্রেনের মুখ দিয়েই নিরবে শহরে প্রবেশ করেছিল বন্যার পানি।

 

 এ জেলার প্রধান নদনদী শীতলক্ষ্যা, ধলেশ্বরী, বুড়িগঙ্গা, মেঘনা ও বালু নদীর পানি এখনো বিপদসীমার যথেষ্ট নীচ দিয়ে বইলেও প্রতিদিনই এসব নদীর পানি বাড়ছে। শীতলক্ষ্যা সংলগ্ন খেয়াঘাটগুলোর জেটি গত এক সপ্তাহে দু’বার উঁচু করতে হয়েছে। বর্তমানে এ নদীর প্রশস্ততা শুকনো মওসুমের দ্বিগুন হয়ে গেছে। প্রবীন মাঝিরা জানিয়েছেন, প্রতিদিন যে হারে পানি বাড়ছে তাতে অনুমান করা যায়, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শহরে পানি ঢুকবে।

 

 প্রতিদিন নদী পার হয়ে শহরে আসে এমন কর্মজীবী নারীপুরুষেরা খেয়া নৌকায় লাইফ বয়া নিদেন পক্ষ্যে বাতাস ভরা বাস-ট্রাকের চাকার টিউব রাখার দাবী করেছেন। কারণ, সামান্য বাতাসে এখন নদীতে ঢেউ উঠছে। তাছাড়া পাশ দিয়ে যাতায়াতকারী জাহাজ ও ট্রলারের ঢেউয়েও নৌকা কাত হয়ে যাচ্ছে। তখন ভীষণ ভয় করে। নদীতে এখন প্রচন্ড স্রোত, কোন দুর্ঘটনা ঘটলে মানুষ অন্তঃত বয়া বা টিউব ধরেও ভেসে থাকতে পারবে। এ মুহুর্তে বন্যার পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে। সিটি কর্পোরেশন এবং জেলা প্রশাসনকে এখনই প্রস্তুত থাকতে হবে। এসএম/জেসি 
 

এই বিভাগের আরো খবর