সোমবার   ২৪ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১০ ১৪৩১

ফতুল্লার কবির হত্যা মামলায় পাঁচ জনের যাবজ্জীবন

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

 

ফতুল্লা মডেল থানায় করা হত্যা মামলায় দুজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও পাঁচ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় আরও পাঁচজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

 

আমৃত্যু দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ফতুল্লার দক্ষিণ শিয়ারচর এলাকার ইদ্রিস চকিদারের স্ত্রী সালেহা বেগম ও কোতয়ালের বাগ এলাকার বিল্লাল মুন্সীর ছেলে মনির হোসেন। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ফতুল্লার কোতয়ালের বাগ এলাকার হেলাল উদ্দিনের ছেলে মো. কাজল মিয়া, লাল খা এলাকার মৃত আবেদ আলীর ছেলে মো. জুয়েল, কোতয়ালের বাগ এলাকার মো. আব্দুল ছালামের ছেলে নুরুল ইসলাম, বরগুনা জেলার আব্দুল ছালামের মাজেদুল ইসলাম মঞ্জু ও যশোর জেলার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে লিটন। তাদের মধ্যে আদালতে সালেহা বেগম ছাড়া সবাই অনুপস্থিত ছিলেন।

 

গতকাল সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক উম্মে সরাবন তহুরার আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন। সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট শিপ্রা মোদক বলেন, ২০১১ সালের ২১ এপ্রিল রাতে ফতুল্লার শিয়ারচর এলাকার আনিছ মিয়ার ভাড়াটিয়া কবির হোসেন (৩৫) বাসা থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হন। পরদিন সকালে বাসার পাশে একটি পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

 

এ ঘটনায় তার স্ত্রী তাসলিমা আক্তার ২২ এপ্রিল বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় মামলা করেন। আদালত সেই মামলার দীর্ঘ বিচার কার্যক্রম শেষে তিনজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি ও ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে এ রায় ঘোষণা করেছেন। নারায়ণগঞ্জ আদালত পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এস.এ/জেসি

এই বিভাগের আরো খবর