রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪   শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের সামনের রাস্তার বেহাল দশা  

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৭ জুলাই ২০২৪  


ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্গত শিবু মার্কেট থেকে পোষ্ট অফিস পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় আড়াই কিলোমিটার  সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন একটি সড়ক হিসেবে বিবেচিত। এই সড়কটি ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে সামনেই অবস্থিত।  এই রাস্তায় প্রতিদিন কয়েক হাজার গাড়ির পাশাপাশি কয়েক লাখ মানুষ চলাচল করে। পুরো সড়কজুড়েই রাস্তার উভয় পাশে রয়েছে কয়েকশত শিল্প প্রতিষ্ঠান।

 


এই সব শিল্প প্রতিষ্ঠানের যানবাহনগুলোর চলাচলে সবসময় ব্যাস্ত থাকে এ সড়কটি। অর্থাৎ এ সড়কটি অত্যন্ত ব্যস্ততম একটি সড়ক। কিন্তু মহাগুরুত্বপূর্ন  এ সড়কটি বর্তমানে ভোগান্তীর কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। পুরো সড়কজুড়েই খানাখন্দ । সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়ককে মনে হয় চাষাবাদের জমি। তখন রাস্তায় হাঁটাই অসম্ভব হয়ে পরে। শুধু তাই নয় পুরো সড়কজুড়েই রয়েছে বিভিন্ন আকারের গর্ত। যার কারনে প্রায়ই বিভিন্ন ধরনের যানবাহন দুর্ঘটনার সম্মুখীন হচ্ছে হরহামেশাই।

 


সড়কের এ নাজুক অবস্থার কারনে যানযট যেনো নিত্যদিনের সঙ্গি। ১০ মিনিটের রাস্তা পার হতে  মাঝে মাঝে ১ ঘন্টা সময় লেগে যায়। সূত্রমতে, সিদ্ধিরগঞ্জ ডিপো থেকে ফতুল্লা ডিপোতে সরাসরি পাইপলাইনের সংযোগ করতেই এ সড়ক খুড়তে হয়েছে একাধিকবার। এছাড়াও বিভিন্ন ভারী ভারী যানবাহনের অত্যাধিক চলাচলের কারনে রাস্তার এই করুন দশা বলে নিশ্চিত করেছে সূত্রটি। এই সড়ক নিয়ে স্থানীয়দের অভিযোগের অন্ত নেই।

 


এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে তাদের সম্মিলিত বক্তব্য হলো একটা সময় এ সড়কটি আশেপাশের বহু এলাকার জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ন হলেও সময়ের সাথে সাথে এ সড়কটি যেনো পরিনত হয়েছে এলাকাবাসীর গলার কাটা।

 


একদিকে ভাঙ্গা সড়ক অন্যদিকে যানজটের কারনে সৃষ্টি হওয়া অবর্ননীয় দূভোর্গ এই দুইয়ের মিশেলে সড়কটি এখন ব্যাবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।স্থানীয়দের দাবি এলজিইডির আওতাধীন এ সড়কটি অতিদ্রুত চলাচলের উপযোগী করার জন্য সংস্কার হোক।

 


এ ব্যাপারে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফাইজুল ইসলাম বলেন, রাস্তাটি ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্গত নয়, এটা এলজিইডির আওতাধীন। তবুও আমি নির্বাচিত হওয়ার পর আপদকালীন সমাধান হিসেবে বিভিন্ন স্থানে যথাসম্ভব চলাচলের উপযোগী করার চেষ্টা করেছি। এ ব্যাপারো ইতিমধ্যো সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের সাথে কথা হয়েছে। রবিবার জেলা পরিষদের  চেয়ারম্যান,এলজিইডি এর প্রকৌশলী মহোদয়গনের সাথে রাস্তাটি পরিদর্শন করা হবে।এন. হুসেইন রনী  /জেসি  

এই বিভাগের আরো খবর