রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১   অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৮

বাড়তি ভাড়া জনগণের ঘাড়ে

যুগের চিন্তা অনলাইন

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২১  

# না.গঞ্জে আবারো বিআরটিএ’র অনুমতি ছাড়াই বাড়ল বাস ভাড়া


# টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা


# এ বিষয়ে বিআরটিএ-কে কিছুই জানানো হয়নি- আইনুল হুদা



আবারো নারায়ণগঞ্জ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিআরটিএর অনুমোতি ছাড়া বাস ভাড়া বৃদ্ধি করলো, স্থানীয় বাস মালিক সমিতির নেতারা। জানা গেছে, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সারাদেশে পরিবহন মালিকদের ডাকা ধর্মঘটে টানা দিন ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বাস চলাচল বন্ধ ছিলো।

 

তবে গতকাল (রোববার) বনানীতে অবস্থিত বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও পরিবহন মালিকদের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহারের বিষয়ে জানান কেন্দ্রীয় পরিবহন মালিক সমিতির নেতারা। এ সময় সারাদেশে প্রায় ২৭ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধির শর্তে আজ থেকে সড়কে গণপরিবহন চলবে বলে জানান তারা।

 


এদিকে বনানীতে বিআরটিএর অফিসে কেন্দ্রীয় বাস মালিক সমিতির নেতাদের বৈঠকের শেষে অর্থাৎ গতকাল রাতে ঢাকা নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলকারী বন্ধন, সিটি বন্ধন, উৎসব, আনন্দ এবং বাঁধনসহ ৫ টি পরিবহনের প্রায় ৪০ জন মালিক মিলে নারায়ণগঞ্জে একটি মিটিং করেন। এরপর সেই মিটিং শেষে আজ থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বাস ভাড়া ৩৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫০ টাকা করার সিদ্ধান্ত নেন তারা। অথচ নারায়ণগঞ্জ বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ্যের দাবি মালিক সমিতির নেতারা তাদের এ বিষয়ে কিছুই জানান-নি। তাই এটিকে বে-আইনী বলে মন্তব্য করেছেন বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ্য।

 


বাস মালিক সমিতির একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার দুরত্ব ২০.৩ কিলোমিটার। তাই ডিজেল এবং বাসের যন্ত্রাংশের মূল্যবৃদ্ধির জন্য বিআরটিএ’র সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতি কিলোমিটারে নতুন বাস ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২ টাকা ১৫ পয়সা। সেই হিসেবে ৪৩ টাকা ও টোলের ৭ টাকা নিয়ে প্রতিটি টিকিটের মূল্য ৫০ টাকা নির্ধারণ করেছে বাস মালিকরা।

 


এদিকে ঢাকা নারায়ণগঞ্জ রুটে বাস ভাড়া ৩৬ টাকা থেকে বেড়ে ৫০ টাকা হওয়াতে গতকাল রাত থেকেই সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করতে শুরু করেছেন। জানতে চাইলে চাষাঢ়ার শহীদ মিনারের সামনে আনিসুর রহমান নামে এক ব্যবসায়ী বলেন, ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধির পরে নারায়ণগঞ্জের বাস মালিকরা সরকারের নির্দেশনা ছাড়াই যেভাবে ভাড়া বাড়িয়েছে, এটাতো তারই সামিল। ৫০ টাকা দিয়ে টিকিট কিনে ঢাকা নারায়ণগঞ্জে যাতায়ত করাটা আমাদের সাধারণ মানুষের হাতের নাগালের বাইরে। ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী মামুনুল ইসমাল বলেন, আসলে নারায়ণগঞ্জের বাস মালিকরা এই সিদ্ধান্তের সময় বিআরটিএর অনুমোতি নিয়েছে বলে মনে হয়না। কারণ নতুন ভাড়া আমাদের কাছে যৌক্তিক মনে হচ্ছেনা।

 


বাস মালিকদের নতুন ভাড়া নির্ধারনের বিষয়ে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ বিআরটিএর সহকারী পরিচালক আইনুল হুদা বলেন, ডিজেলের দাম বৃদ্ধির পর স্থানীয় বাস মালিকরা এর আগেও একবার আমাদের না জানিয়ে বাস ভাড়া বাড়িয়েছিলো। আর এবাও আমাদের না জানিয়েই ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে টিকিটের মূল্য বৃদ্ধি করেছে তারা। এটা সম্পূর্ণ বে-আইনী কাজ। তবে সিটি বন্ধন পরিবহনের চেয়ারম্যান জুয়েল এ বিষয়ে বলেন, আমরা সব কিছু ভেবে চিন্তেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়া বাড়ানো হয়েছে লঞ্চের ভাড়াও।

 

এই বিভাগের আরো খবর