রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪   শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

ভারতের উত্তর প্রদেশে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে শতাধিক পূণ্যার্থীর মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০২৪  


ভারতের উত্তরপ্রদেশে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে আচার পালনের সময় পদদলিত হয়ে শিশুসহ অন্তত ১১৬ পূণ্যার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই নারী বলে জানা গেছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের। গতকাল মঙ্গলবার, রাজ্যের হাথরাস জেলার সিকান্দ্রা রাও এলাকার রতি ভানপুর গ্রামে 'সৎসঙ্গ' এর অনুষ্ঠানে এক ধর্মপ্রচারক তাঁর অনুগামীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

 

 

পুলিশ জানায়, প্রচণ্ড ভিড়ের মধ্যে অনুষ্ঠান চলা অবস্থায় শ্বাসরোধ হয়ে সৎসঙ্গে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে এক ধরনের অস্বস্তি তৈরি হয়। এক পর্যায়ে সবাই হুড়োহুড়ি শুরু করলে পদদলিত হয়ে হতাহত হন বহু পূণ্যার্থী। পুলিশ আরও জানিয়েছে, "অনুষ্ঠানের সময় আশেপাশের পরিবেশ প্রচণ্ড গরম ও আর্দ্র ছিল। এটি ছিল ধর্মীয় প্রচারক ভোলে বাবার সৎসঙ্গ সভা।"

 


এদিকে, দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া একজনের মতে, ধর্মীয় অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার সময় পদদলিত হওয়ার ঘটনা ঘটে এবং সবাই জায়গা ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য হুড়োহুড়ি শুরু করেন।  তিনি বলেন, “ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক সমর্থক জড়ো হয়েছিলেন। প্রচন্ড ভিড়ে কোন উপায় না পেয়ে সবাই একে অপরের উপর উঠে পড়ে এবং এর কারণেই পদদলিত হওয়ার ঘটনা ঘটে।

 

 

আমি যখন বাইরে বেরোনোর চেষ্টা করি, তখন বাইরে মোটরসাইকেল দাঁড়িয়ে ছিল, যা আমার পথ বন্ধ করে দেয়। এ ঘটনায় অনেকেই মারা যান, পাশাপাশি অনেকে অজ্ঞান হয়ে পড়েন"।  এদিকে, এ ঘটনায় হতাহতদের পরিবারের প্রতি গভীর শোক জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। একইসঙ্গে এ ঘটনায় হাথরাস জেলা ও এর আশেপাশের কর্মকর্তাদের উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যক্রম ত্বরান্বিত করার নির্দেশও দেন তারা।এন. হুসেইন রনী  /জেসি