মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১১ ১৪৩১

মৌলভীদের মুখে অন্যকে আক্রমণ করা সাজে না

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২৪  

 

 

# কোন মৌলভী সাহেবকে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে দেখিনা কিন্তু আমাকে গালাগালি করতেই হবে

 

নগরীর শেখ রাসেল পার্ক নিয়ে হেফাজতে ইসলামের নেতাদের সাম্প্রতিক বক্তব্যে উষ্মা প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। হেফাজতে ইসলামের নেতাদের বক্তব্য দেওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র বলেন, ‘যার যার অবস্থানে থেকে কথা বলবেন, এমন কথা বলবেন না, যাতে আপনাদেরই মানুষ ঘৃণা করতে শুরু করে।’

 

গতকাল বুধবার (৫ জুন) সকালে শেখ রাসেল পার্কে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

আইভী বলেন, ‘আমি কারও সাথে কোনো বিভেদে জড়াতে চাই না। সেটা ধর্মীয়ভাবেও না, সামাজিকভাবেও না। সব ধর্ম একই কথা বলে, ধর্ম পালন করবেন, বিচার হবে আপনার কর্মের। সত্য বলবেন নাকি মিথ্যার সাথে থাকবেন সেটা আপনাদের সিদ্ধান্ত। মানুষের হক মেরে খেলে, সে বিচার সবচেয়ে বেশি হবে। আল্লাহর কাছে আপনাকে জবাবদিহিতা করতে হবে। যারা কোরআন, গীতা, বাইবেল পড়ে, শুনে মৌলভী বা পন্ডিত হয় তাদের মুখে অন্যকে আক্রমন করা সাজে না। 

 

বিশেষ করে আমাদের সমাজে নারীদের বেশি আক্রমন করা হয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘সম্প্রতি আমাদের শেখ রাসেল পার্ক নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। শুধু রাসেল পার্ক না, নারীরা এখান দিয়ে হেঁটে গেলেও অনেকে কথা বলে, মাথায় কেন ঘোমটা দেয়া হলো না, টিপ কেন পড়েছো? টিপ পড়া, মাথায় ঘোমটা দেয়া যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার।

 

 এটা নিয়ে কেউ প্রশ্ন করতে পারে না। আমার যেটা ভালো লাগে না, সেটার দিকে তাকাবো না।’ হেফাজতে ইসলামের নেতাদের উদ্দেশ্যে সিটি মেয়র বলেন, ‘অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে আপনাদের দেখি না। এই শহরে কত ঘটনা ঘটেছে। ত্বকী হত্যাসহ কত বাচ্চাকে হত্যা করে ফেলে রেখেছে। শীতলক্ষ্যা থেকে কত লাশ পাওয়া গেছে। কোনো মৌলভী সাহেবকে দেখিনি একটা প্রতিবাদ করতে। কিন্তু আইভীকে গালাগালি করতেই হবে। আমি একটি অবস্থানে আছি, আমাকে দশ কথা বলুক এতে আমার কিছুই যায় আসে না।’

 

নগরীতে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ চান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্ব পরিবেশ দিবসে আমি সকলের সাথে বন্ধুত্ব চাই। ঝগড়াঝাটি চাই না। কথার পিঠে কথা বলেও সময় নষ্ট করতে চাই না। আমরা আমাদের শহরকে গড়তে চাই। আমরা অনেক মাঠ করেছি, জলাশয় উদ্ধার করে গাছ লাগিয়েছি।’

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউট এর অধ্যক্ষ শামসুল আলম আজাদ,কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, সিটি কর্পোরেশনের নগর পরিকল্পনাবিদ মঈনুল হোসেন প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর