মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১১ ১৪৩১

রিয়াদের পড়াশোনা শেষ হবে কবে?

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২৪  

 

 

হাবিবুর রহমান রিয়াদ। সরকারি তোলারাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও ছাত্রছাত্রী সংসদের প্রতিনিধি (ভিপি) তিনি। ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতিও পদেও। আদৌতে সরকারি তোলারাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগ নামে কোন কমিটি রয়েছে কি না বিষয়টি অনেকেরই অজানা। 

 

তার উপর তোলারাম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে রিয়াদের নেই কোন ছাত্রত্ব। তারপরেও অদৃশ্য কারণে ১০ বছরেরও বেশি সময়ধরে প্রতিনিধিত্ব করছেন কলেজের ছাত্র-ছাত্রী সংসদের! যা নিয়ে পুরো কলেজ ও কলেজের বাইরে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। নতুন নেতৃত্ব বিকশিত না হওয়ায় নানা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। যদিও ভিপি রিয়াদের দাবি, তিনি এখনো মাস্টার্সে পড়াশোনা করছেন। তবে একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র বলছে, রিয়াদের মাস্টার্সে পড়াশোনা করার বিষয়টি ‘ডাহা মিথ্যা’ কথা।

 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম সরকারি তোলারাম কলেজ। ১৯৩৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া এই প্রতিষ্ঠানটিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজার। তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদে নির্বাচন হয়েছিল আজ থেকে ৩৩ বছর পূর্বে।

 

 ১৯৯১ সালে অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্যানেল নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছিল। সহ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন যথাক্রমে আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল ও জাকিরুল আলম হেলাল। সর্বশেষ, ২০০৪ সালের ১৬ অক্টোবর এককভাবে নির্বাচিত হন রাজীব-শাহ আলম পরিষদ। তবে, সেসময় ছাত্রলীগ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেননি। এভাবেই প্রায় ৩৩ বছর ধরে কোন নির্বাচন নেই সরকারি তোলারাম কলেজে!

 

এদিকে, কলেজে আনুষ্ঠানিকভাবে ছাত্র সংসদ না থাকলেও অনানুষ্ঠিকভাবে নানা কার্যক্রম হয়ে থাকে; যা কলেজ কর্তৃপক্ষের পরামর্শে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সম্পন্ন করেন। ছাত্রলীগ ছাড়া এই কলেজে অন্য কোন ছাত্র সংগঠনের কার্যক্রম নেই বা থাকলেও দৃশ্যমান নয়। এভাবেই গত ১০ বছর ধরে কলেজের ছাত্রছাত্রী সংসদটি দখল করে রেখেছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ। কোন ধরণের নির্বাচন ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালন করছেন সরকারি তোলারাম কলেজ ছাত্রছাত্রী সংসদের প্রতিনিধি হিসেবে।

 

অপরদিকে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, হাবিবুর রহমান রিয়াদ বর্তমানে সরকারি তোলারাম কলেজের শিক্ষার্থী নন। শুধুমাত্র দলীয় প্রভাবে কোন ধরণের নির্বাচন ও ছাত্রত্ব ছাড়াই বছরের পর বছর ধরে সরকারি তোলারাম কলেজ ছাত্রছাত্রী সংসদটি দখল করে রেখেছেন তিনি।

 

 বিশেষ করে, ওসমান পরিবারের আশীর্বাদপুষ্ট হওয়ার কারণেই দায়িত্ব পালন করতে রিয়াদের লাগে না কোন নির্বাচন ও ছাত্রত্ব। ‘রিয়াদ সরকারি তোলারাম কলেজে মাস্টার্সে পড়াশোনা করে’- এটি একটি ডাহা মিথ্যা কথা। আর যদি করেও থাকে সেক্ষেত্রে একজন মানুষ কতো বছর মাস্টার্সে পড়াশোনা করে? রিয়াদের পড়াশোনা শেষ হবে কবে?

 

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সরকারি তোলারাম কলেজ ছাত্রছাত্রী সংসদের প্রতিনিধি হাবিবুর রহমান রিয়াদ যুগের চিন্তাকে বলেন, আমি এখনো পড়াশোনা করছি। সরকারি তোলারাম বিশ্ববিদ্যালয়ে হিসাববিজ্ঞান সাবজেক্টে মাস্টার্স করছি।

এই বিভাগের আরো খবর