সোমবার   ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৪ ১৪২৯

শিক্ষাক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত চাহিদার পরিবর্তন ঘটছে : গিয়াস উদ্দিন

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৩  

 

গিয়াস উদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন বলেন, আমাদের শিক্ষাক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত চাহিদার পরিবর্তন ঘটছে। প্রত্যেকটা অভিভাবক তার সন্তানকে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠায়, তাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য থাকে তার ছেলে-মেয়ে পড়ালেখা করে জ্ঞান অর্জন করবেন, তেমনি সে ভালো মানুষ হয়ে তার পরিবারে কাছে ফিরে যাবে।

 

 

প্রত্যেকটা মানুষের এটা আকাক্সক্ষা ও চাহিদা। আমাদের পূর্ব পুরুষরা আমাদের চাইতে অনেক কম শিক্ষা-দীক্ষা ছিলো ও জ্ঞান, বুদ্ধি ও বিজ্ঞানে অনেক অনগ্রসর ছিলো। কিন্তু তাদের মধ্যে যে জ্ঞান গুলো ছিলো এখন কার আমাদের চরিত্রের সাথে তাদের অনেক আকাশ-পাতাল পার্থক্য।

 

 

এখন পৃথিবীর প্রযুক্তি গুলো অনেক বেশী এগিয়ে গেছে। তারা যদি সেসময় কম শিক্ষা অর্জন করে শিক্ষিত, সত্যবাদী ও ন্যায়পরায়ন হয়ে থাকে তাহলে আমরা শিক্ষা দীক্ষা করে কি হলাম? আমরা ঘুষখোর, দুর্নীতিবাজ, পদ-পদবী ও ব্যক্তি স্বার্থের জন্য বিবেক বুদ্ধিকে সম্পূর্নরূপে ত্যাগ করে আমরা যে সকল কাজ করি এই কাজে কোন সময় বলা যাবে না আমরা শিক্ষিত লোক গুলো ভালো।

 

 

গতকাল শনিবার (১৪ জানুয়ারী) সকাল ১০টায় সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিল এলাকার গিয়াসউদ্দিন এডুকেশন কমপ্লেক্স কনভেনশন সেন্টারে গিয়াস উদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের ১৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

 

তিনি আরও বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত আমাদের চাহিদার পরিবর্তন ঘটছে। আমাদের মধ্যে কেউ কেউ রাজনীতিবীদ, শিক্ষাবীদ, সাংবাদিক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হয়ে যেখানে যে বসছে দুই একজন ভালো ছাড়া অধিকাংশ দুর্নীতিপরায়ন ও স্বার্থপরায়ন।

 

 

প্রযুক্তি যতো উন্নতি হোক আর জ্ঞানে যতো অগ্রসর হই না কেনো চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের ক্ষেত্রে আমরা মানবিক গুনাবলীহীন। যে শিক্ষা মানুষের গুনাবলী সাধন করে না, সে শিক্ষা কখনো মানুষের কল্যান আনতে পারে না। তোমরা এখন সবাই মর্ডান এবং জীবনযাত্রায় প্রথম।

 

 

যখন কোনো কিছু কিনার জন্য যাও সেটা জুতা বা জামা কাপড় হোক তোমরা গিয়ে ব্রান্ড খোঁজো। তোমরা বেশি পয়সা দিয়ে ব্রান্ডের সব জিনিস কিনো। আমরাও চাই এ প্রতিষ্ঠান থেকে তোমাদের ব্রান্ড তৈরি করে দেওয়ার। যাতে তোমাদের মূল্যবৃদ্ধি হয় পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র ও মহান সৃষ্টার কাছে। এ মূল্যবৃদ্ধির জন্য আমরা তোমাদেরকে জিআইএমসির ব্রান্ড হিসেবে তৈরী করে দিতে চাই।

 

 

আমি অনেক গুলো স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠিত করেছি। তোমরা এই কলেজে এসেছো আমি তোমাদের জীবনের সফলতা কামনা করছি। এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের প্রফসর ড.জাফর আহমেদ খান।

 

 

গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের উপাধ্যক্ষ মীর মোসাদ্দেক হোসেনের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন, গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, দৈনিক অগ্রবাণী পত্রিকার সম্পাদক মো. হারুন অর রশিদ চৌধুরী স্বপন

 

 

এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট বোর্ড (এম এ হাশেম ইয়াতুননেছা ফাউন্ডেশন) এর উপসচিব মো. এবাদুল হক, সহকারী অধ্যাপক (ইংরেজি বিভাগ) আবু তালেব, সহকারী অধ্যাপক মো.তাহের, আলী আকবর খাঁন, শিশির ঘোষ, প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য মো. ওমর ফারুক, উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আহসান উল্লাহ সহ প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর