বুধবার   ১৯ মে ২০২১   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৮

হেফাজত সহিংসতার মামলায়  আরো ৩ জন গ্রেফতার

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০২১  

হেফাজতের হরতালে সহিংসতার ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের করা মামলায় আরো তিনজনকে গ্রেফতার করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। শনিবার গণমাধ্যমের কাছে তাদের গ্রেফতারের ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান। শুক্রবার দিবাগত রাতে ও শনিবার দুপুরে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

 

গ্রেফতারকৃতরা হলো নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের সহসভাপতি মো. কাউছার আহম্মেদ (৩৪) এবং হেফাজত কর্মী মোয়াজ্জেম হোসাইন (৫৮) ও হেফাজত কর্মী মো. রাশেদুজ্জামান ওরফে মুন্না (২২)। এর মধ্যে মো. কাউছার আহম্মেদ ও হেফাজত কর্মী মোয়াজ্জেম হোসাইনকে গতকাল বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ুন কবীর এর আদালতে তোলা হলে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়া হয়। গ্রেফতারকৃত কাউছার চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানাধীন চর মান্দারীর মৃত আ. রহমানের ছেলে। বর্তমানে সে সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজির চৌধুরীবাড়ী এলাকার কাজী একে আজাদ পাহাড়ীর বাড়ীর ভাড়াটিয়া। মোয়াজ্জেম নেত্রকোনার দূর্গাপুরের মউ এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে। বর্তমানে সে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বাতেনপাড়া এলাকায় বসবাস করে। অপর গ্রেফতারকৃত আসামী রাশেদুজ্জামান খুলনা জেলার পাইকগাছার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে।

 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় গত ২৮ মার্চ হেফজতে ইসলাম কর্তৃক হরতালের তা-বে অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন ছবি প্রকাশিত হলে উক্ত ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ পূর্বক পর্যালোচনা করে আসামীদের গ্রেফতার করা হয়। উল্লেখ্য, গত ২৮ মার্চ হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালে সহিংসতার ঘটনায় রূপগঞ্জ ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় পুলিশ ও র‌্যাব ৭টি মামলা দায়ের করে। পরে ঢাকা আহসান গ্রুপের এজি প্রোপার্টিজ ডেভেলপমেন্টস লি. এর সিনিয়র এক্সিকিউটিভ সোহেল আহমেদ ও বিআরটিসি যাত্রাবাড়ি বাস ডিপো’র পরিযান পরিদর্শক হুমায়ুন আজাদ খান বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় আরও ২টি মামলা দায়ের করেন। ফলে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট ৯টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় বিএনপি, জামায়াত নেতাসহ ১৬৬ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা আরও প্রায় ৩ হাজার ৭০০ জনকে আসামি করা হয়।

এই বিভাগের আরো খবর