রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১   চৈত্র ২৭ ১৪২৭

২১টি লাশসহ উদ্ধার হলো সাবিত আল হাসান, নিহত বেড়ে ২৬

যুগের চিন্তা অনলাইন

প্রকাশিত: ৫ এপ্রিল ২০২১  

অবশেষে ২১ লাশসহ উদ্ধার করা হলো শীতলক্ষ্যায় ডুবে যাওয়া লঞ্চ সাবিত আল হাসান। সর্বশেষ উদ্ধার করা লাশের সংখ্যা ২৬। স্বজনের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠে কয়লারঘাট এর আশেপাশের এলাকা।

 

সোমবার (৫ এপ্রিল) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে লঞ্চটি উদ্ধার করে বিআইডব্লিওটিএ এর উদ্ধারকারী জাহাজ ‘প্রত্যয়’। সোমবার সকাল থেকেই শীতলক্ষ্যার কয়লার ঘাট এলাকার নির্মাণাধীন শীতলক্ষ্যা ৩য় সেতু এলাকায় ডুবে যাওয়া এই লঞ্চটির উদ্ধার কাজ শুরু করে।

 

কোস্টগার্ড বিআইডব্লিউটিএ, বাংলাদেশে নেভী, দমকল বাহিনী, নৌ থানা পুলিশসহ বিভিন্ন উদ্ধারকর্মীরা একাধিক বোট নিয়ে বিআইডব্লিওটিএ এর উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয়ের সহযোগিতায় বিভিন্ন বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থেকে লঞ্চটির উদ্ধার কাজ পরিচালনা করেন।

 

এর আগের দিন লঞ্চটি নারায়ণগঞ্জ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে মুন্সিগঞ্জের যাওয়ার পথে সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার দিকে কয়লার ঘাট এলাকায় পেছন থেকে একটি কার্গো এসে ধাক্কা দিলে লঞ্চটি ৬০ জনেরও অধিক যাত্রী নিয়ে পানির নিচে তলিয়ে যায়। সে সময় প্রায় ২৮জন যাত্রি সাঁতার কেটে নদীর তীরে ওঠতে পারেন। বাকীরা পানির নিচে তলিয়ে যায়।

 

এরমধ্যে গতকাল রাত্রে ৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে উদ্ধার কর্মীরা। পরে সেগুলোর চারটির পরিচয় পাওয়া গেলে তাদের স্বজনের হাতে লাশগুলো তুলে দেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক।

 

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ২৫ বছরের যুবক আরাফাত জানান, সে সময় সে ঐ লঞ্চটির উপরের কেবিনের ভিতর ছিল। হঠাৎ করে একটি ঘর্ষণের শব্দ পেয়ে তিনি বের হতে চেষ্টা করেন। কিন্তু হৈ হুল্লোরের কারনে তিনি বেরুতে পারিছলেন না। যখন বের হতে পারেন তখন তিনি দেখেন লঞ্চতি পানির নিচে তলিয়ে যাচ্ছে। তখন সকল আর্তনাদ ছাপিয়ে তিনি পানিতে লাফিয়ে পড়েন। সাঁতার কাটার সময় তাদের লঞ্চের পাশ দিয়ে এসকেএল-৩ নামের একটি কার্গো চলে যাচ্ছে। আমি তখন ভয়ে ছিলাম আমাকে কেউ জাবরিয়ে ধরলে আমিও হয়তো পানির নিচে তলিয়ে যাবো। তাই যত তারাতারি সম্ভব আমি সকলের কাছ থেকে দুরে সরে যেতে চাচ্ছিলাম।

 

নারায়ণগঞ্জ নৌ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল আলম জানান, রোববার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জ যাওয়ার পথে শীতলক্ষ্যায় নির্মাণাধীন সেতুর কাছাকাছি স্থানে একটি কোস্টার জাহাজের ধাক্কায় এমএল সাবিত আল হাসান নামের এই লঞ্চটি ডুবে যায়।
 

এই বিভাগের আরো খবর