বৃহস্পতিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

অর্থনীতিতে বৈশ্বিক মন্দার কারণে ডিএনডি প্রকল্পে ধীরগতি

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  


নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জবাসীর দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান ঘটাতে, জাতীয় সংসদে ডিএনডি প্রকল্প অসম্পূর্ণ রয়ে যাবে কিনা জানতে চেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। গতকাল রবিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে এক সম্পূরক প্রশ্নে শামীম ওসমান এই প্রশ্ন তুলে ধরেন।

 

 

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। এমপি শামীম ওসমান প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুককে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমার আমাদের সুযোগ্য মন্ত্রীর মাধ্যমে আমাদের জাতির পিতার কণ্যা প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

 

 

আপনি নারায়ণগঞ্জে অনেকবার গিয়েছেন, আমাদের নারায়ণগঞ্জের ডিএনডি প্রকল্প যেখানে. নারায়ণগঞ্জের প্রায় ২০ থেকে ২৫ লাখ মানুষ পানিবন্দি। এটা আসলে পানি বলা যাবে না, বিষাক্ত পানিবন্দি। সেখানে জাতির পিতার কণ্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার নিজস্ব তত্ত্বাবধানে ১৩শ’ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন, যার কাজ শেষ প্রান্তে  এসে ঠেকেছে।

 

 

যদিও এটা ডিসেম্বরে শেষ হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু কিছু সমস্যা থাকায় এটা আগামী জুন মাসে শেষ হবে। ১৩শ’ কোটি টাকায় যেভাবে আপনি পরিকল্পনা নিয়েছিলেন, এই টাকায় কি কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন নাকি কাজটি অসম্পূর্ণ রয়ে যাবে?  বলে প্রশ্ন করেন মন্ত্রীর কাছে।
 

 


শামীম ওসমানের প্রশ্নের জবাবে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, ডিএনডি প্রজেক্টটি একটি বিল্ডাপ এড়িয়ায় প্রকল্পটি নেয়া হয়েছে। এক সময় এটা সেচ প্রকল্প ছিলো। বিভিন্ন কারণে এখানে ঘন জনবসতি হয়েছে, বিভিন্ন জায়গায় স্কুল কলেজ হওয়ার জন্য আমাদের ডিএনডি প্রজেক্ট শুরু করতে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে।

 

 

আমরা এটার শেষ পর্যায় চলে এসেছি, অর্থনীতিতে বৈশ্বিক মন্দার কারণে আমরা একটু ধীর গতিতে অগ্রসর হচ্ছি। আপনাদের এই প্রকল্পটি শেষ করার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ। দিয়েছি। এছাড়া আমরা প্রকল্পটি শেষ করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।   এন. হুসেইন রনী  /জেসি

এই বিভাগের আরো খবর