বৃহস্পতিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

প্রার্থী ঘোষণায় থাকছে চমক, দুপুরের মধ্যেই জানা যাবে নাম

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

 
অবশেষে নানা জল্পনা কল্পনার অবসান হতে যাচ্ছে। ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে কে পাচ্ছেন শামীম ওসমানের আশির্বাদ সে উত্তর মিলবে আজই। সূত্র মতে, গতকাল (শুক্রবার) আরেকদফা বৈঠক হয় সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে। তবে নাম ঘোষনা হয়নি। নাম ঘোষনা না হলেও প্রার্থী অনেকটাই চুড়ান্ত বলা চলে। চুড়ান্ত প্রার্থীর নাম ঘোষনা দিবে আজকেই।

 

 

তবে প্রার্থী ঘোষণায় চমক থাকবে বলে নিশ্চিত করা হয়। তবে শামীম ওসমান যাকে গ্রীন সিগন্যাল দিবেন তার হয়েই কাজ করবেন বাকিরা এমনটাই জানিয়েছেন ফতুল্লার শামীম ওসমানের আস্থাভাজন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। এর প্রেক্ষিতে বলাই যায়  কে হচ্ছেন ফতুল্লা ইউপির  চেয়ারম্যান সে সিদ্বান্ত এখন সম্পুর্ন নির্ভর করছে এ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের উপর।

 


আগামী ৯ মার্চ হতে যাচ্ছে ফতুল্লা ইউপির উপ নির্বাচন এমন   ঘোষনার পরপরই ফতুল্লা ইউপির উপনির্বাচন নিয়ে আবারো আলোচনায় আসে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে শামীম ওসমানদের আস্থাভাজনদের নাম। পাশাপাশী এই আস্থাভাজনদের তালিকায় থাকা নেতাদের নিজেদের মধ্যো লড়াই জমে ওঠার আভাস পাওয়া যায়।

 


কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যো বলেছেন আপাতত স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয়ভাবে কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হবেনা। তিনি বলেন এতে ভোট অংশগ্রহনমূলক ও উৎসবমুখর হবে। যিনি জনপ্রিয় প্রার্থী তিনি জয়ী হয়ে আসবেন।  তবে এ নির্বাচনে এমনটা হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেনা ইউনিয়নবাসী । কারন শামীম ওসমান যাকে সমর্থন দিবেন বাকী প্রার্থীরাও তার হয়ে কাজ করবেন। যদি এমনটাই হয় তবে নির্বাচন হবে আমেজহীন।

 


তথ্যমতে, এ উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করবেন, ফতুল্লা থানা আ’লীগের ১ নং সদস্য আবু শরীফুল হক,  ফতুল্লা থানা  ফতুল্লা থানা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, ফতুল্লা থানা আওয়ামী যুবলীগ নেতা হাজী আজমত  আলী,  ফতুল্লা থানা আ’লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ফরিদ আহম্মেদ লিটন, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল আলী, প্রয়াত চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন এর স্ত্রী সেলিনা সুলতানা, ফতুল্লা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মিসির আলি ও ফতুল্লা থানা আ’লীগের সদস্য মুজিবুর রহমান।

 


তথ্যমতে, প্রার্থীর প্রত্যেকেই শামীম ওসমানের অত্যন্ত আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত। তারা প্রত্যেকেই প্রতিটি রাজনৈতিক কর্মসূচীতে শামীম ওসমানের ডাকে সফলভাবে সারা দিতো। এদের প্রত্যেকেই ফতুল্লা ইউপির উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধীতা করার ইচ্ছে পোষন করেছেন।

 

 

তবে এদের প্রত্যেকেই আবার শামীম ওসমানকে অভিবাবক হিসেবে অত্যন্ত মান্য করে। তারা প্রত্যেকেই জানিয়েছে শামীম ওসমান যা সিদ্ধান্ত দিবেন তারা সে সিদ্বান্ত মেনে নেবেন অর্থাৎ তারা শামীম ওসমানের সিদ্বান্তের উপর অত্যন্ত শ্রদ্বাশীল।

 


এ নিয়ে সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাথে বৈঠক করেছেন শামীম ওসমান। বৈঠকে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিজেদের মধ্যো ঐক্যমতে আসার জন্য বলা হয়েছে। এ নিয়ে কয়েকদফা বৈঠক করা হয়। তবে সিদ্বান্তে পৌছানো যায়নি। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত উপনীত হওয়া গেলেও সে সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। এ সিদ্ধান্ত জানানো হবে আজ।

 


তবে ইউনিয়নবাসীর প্রাপ্ত তথ্য মতে, তারা এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে কোনো বিতর্কিত ব্যাক্তিকে চায়না। তবে জনমত জরিপে দেখা যায় ইউনিয়নবাসী আজমত অথবা শরিফুলে আস্থা রাখতে চায়। তাদের ভাষ্যমতে, আজমত একজন ক্লিন ইমেজের ব্যাক্তি।

 

 

সে নিজে কোনো মাদক ,সন্ত্রাস, কিশোরগ্যাং, ভূমিদস্যুতা কিংবা এ জাতীয় কোনো অপরাধের সাথে যুক্ত নয়। তিনি এসব অপরাধকে পশ্রয় দেননা। তিনি সামাজিকভাবে প্রচুর সুনাম অর্জন করেছেন তার কৃতকর্মের দ্বারা।

 


শুধু তাই নয় তিনি রাজনৈতিক বিভিন্ন কর্মসূচীতেও ছিলেন দারুন সফল। এজন্য শামীম ওসমানের আস্থা অর্জন করতে সমর্থ হয়েছেন। রাজনৈতিক মহলেও আজমত এর রয়েছে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা। অন্যদিকে শরিফুল হক ও ফতুল্লায় ক্লিন ইমেজধারী আ’লীগ নেতা হিসেবে সুপরিচিত।  যেকোনো সামাজিক , রাজনৈতিক কাজে দারুন সফল এক সময়ের তুখোর এই ছাত্রনেতা।

 


তার নামের পাশে নেই কোনো বিতর্ক। এই কারনে শরিফুল হক শামীম ওসমানের আস্থা অর্জন করতে সমর্থ হয়েছেন। তবে এছাড়াও দৌড়ে রয়েছেন ফতুল্লা থানা  যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, ফতুল্লা থানা আ’লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ফরিদ আহম্মেদ লিটন ও প্রয়াত চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন এর স্ত্রী সেলিনা সুলতানা। তবে দেখার বিষয় কি চমক অপেক্ষা করছে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়াম্যান পদকে ঘিরে।   এন. হুসেইন রনী  /জেসি

এই বিভাগের আরো খবর